রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫৪ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিজ্ঞপ্তি : বাংলাদেশের সবগুলো বিভাগের প্রতিটি জেলা, উপজেলা ও কলেজপর্যায়ে সংবাদদাতা/প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যারা অনলাইন সংবাদ প্রকাশনার সাথে সংবাদ প্রতিনিধি হিসাবে কাজ করতে ইচ্ছুক তারাই কেবল এই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশ গ্রহণ করতে পারবেন। আগ্রহী দক্ষ সংবাদ প্রতিনিধিদের আমাদের কাছে ই-মেইল মারফত সিভি জমা দিতে হবে। আপনার সিভি জমা দেয়ার পর salmankoeas@gmail.com থেকে প্রতিনিধি বাচাই কার্যক্রমে নিয়োজিত টিম আপনাদের সিভি পর্যালোচনা করে ই-মেইল মারফত বা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে salmankoeas@gmail.com এর সাথে সংবাদ প্রতিনিধি হিসাবে কাজ করতে পারবে কি না তা নিশ্চিত করবে। মোবাইল: ০১৭১১-০০৭২৭২
ব্রেকিং নিউজ :
মেসির জন্য সিংহের মতো লড়বে আর্জেন্টিনা ।। দৈনিক ক্রাইমসিন শায়েস্তাগঞ্জ থানার নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ।। দৈনিক ক্রাইমসিন মাধবপুরের তেলিয়াপাড়া চা বাগান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসৌধে দুই মন্ত্রীর শ্রদ্ধা ।। দৈনিক ক্রাইমসিন সারাদেশে আগামী ১৫ দিন পুলিশের বিশেষ অভিযান।। দৈনিক ক্রাইমসিন জগদীশপুর যোগেশ চন্দ্র হাই স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালনা কমিটিকে ব্যাংক এশিয়ার সংবর্ধনা।দৈনিক ক্রাইমসিন মাসুদ ফাউন্ডেশনের ৫ম বর্ষে পদার্পন উপলক্ষে কেক কাটা, আলোচনা সভা ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। মৌলভীবাজারে কর্মরত টেলিভিশন সাংবাদিকদের সংগঠন ইমজা’র নির্বাচন অনুষ্ঠিত l দৈনিক ক্রাইমসিন হবিগঞ্জের মাধবপুরে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় দুইজনের মৃত্যুদন্ড ।। দৈনিক ক্রাইমসিন মাধবপুর পৌর কিন্ডারগার্টেনে বার্ষিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত ।। দৈনিক ক্রাইমসিন আর্জেন্টিনা জিতলে নকআউট হারলে বিদায়, ড্র করলে সমীকরণ মেলাতে হবে । দৈনিক ক্রাইমসিন

হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে আগুন। রক্ষা পেল ৩৬ নবজাতক শিশু। দৈনিক ক্রাইমসিন

সোহাগ মিয়া, (মাধবপুর) হবিগন্জ প্রতিনিধিঃ
হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেলা সদর হাসপাতালের নবজাতক ওয়ার্ডে স্ক্যানুতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। তবে অল্পের জন্য ৩৬ নবজাতক নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। অগ্নিকান্ডের পর হবিগন্জ পিডিবি’র জরুরি বিভাগে বার বার ফোন করা হলে ও কেউ ফোন রিসিভ করেননি। এতে অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। আতঙ্কে চতুর্দীক ছুটাছুটি করতে গিয়ে হাসপাতালের স্টাফ সহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সদর হাসপাতালে দ্বিতীয় তলায় স্ক্যানু (নবজাতক) ওয়ার্ডে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে দমকল বাহিনী ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।
প্রত্যকদর্শীরা জানান, হঠাৎ বিদ্যুৎ এর মেইন সুইচ ও মিটার থেকে স্ক্যানু ওয়ার্ডে আগুনের সূত্রপাত হয়। ভয়ে নার্স ও নবজাতকের অবিভাবকরা দৌড়াদৌড়ি শুরু করেন। হাসপাতাল থেকে বারবার ফোন করলে ও পিডিবি’র জরুরি বিভাগের কেউ কল রিসিভ করেননি। টমনকি বিভিন্ন সরকারি দপ্তর থেকপ ও ফোন দেয়া হয়। কিন্তু কেউ ফোন রিসিভ করেনি। ঘন্টাখানেক পর পিডিবি’র কর্মচারীরা হাসপাতালে আসেন। তবে তার আগেই দমকল বাহিনীর সদস্যরা আগুন নিভিয়ে ফেলেন। স্থানীয়রা জানান, সময়মতো ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে না আসলে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের সাক্ষী হতো হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল। এদিকে স্ক্যানু ওয়ার্ডে সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ কথা থাকলে ও বিদ্যুৎ না থাকায় বিভিন্ন স্থান থেকে নবজাতক নিয়ে এলে ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রিসিভ না করে তাদেরকে সিলেট বা ঢাকা রেফার করার কথা জানা গেছে। এতে রোগীর স্বজনরা চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক আমিনুল ইসলাম সরকার বলেন, স্ক্যানুতে বিদ্যুৎ না থাকায় নবজাতক রিসিভ করা হয় নি। হবিগঞ্জ দমকল বাহিনীর সহকারী পরিচালক জানান, ফোন পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে সক্ষম হই। নতুবা বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটতো। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পিডিবি’র নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, জরুরী বিভাগের কেউ কেন ফোন ধরেনি জিজ্ঞেসা করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিষয়টি তার জানা ছিল না বলে ও জানান তিনি।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে ভাগ করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত