বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:১২ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি:
বিজ্ঞপ্তি : বাংলাদেশের সবগুলো বিভাগের প্রতিটি জেলা, উপজেলা ও কলেজপর্যায়ে সংবাদদাতা/প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যারা অনলাইন সংবাদ প্রকাশনার সাথে সংবাদ প্রতিনিধি হিসাবে কাজ করতে ইচ্ছুক তারাই কেবল এই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশ গ্রহণ করতে পারবেন। আগ্রহী দক্ষ সংবাদ প্রতিনিধিদের আমাদের কাছে ই-মেইল মারফত সিভি জমা দিতে হবে। আপনার সিভি জমা দেয়ার পর salmankoeas@gmail.com থেকে প্রতিনিধি বাচাই কার্যক্রমে নিয়োজিত টিম আপনাদের সিভি পর্যালোচনা করে ই-মেইল মারফত বা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে salmankoeas@gmail.com এর সাথে সংবাদ প্রতিনিধি হিসাবে কাজ করতে পারবে কি না তা নিশ্চিত করবে। মোবাইল: ০১৭১১-০০৭২৭২
ব্রেকিং নিউজ :
বিজয়নগরে হানাদার মুক্ত দিবস উদযাপন।। দৈনিক ক্রাইমসিন সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের সদর উপজেলা কমিটি ঘোষণা।। দৈনিক ক্রাইমসিন মাধবপুরে উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটি গঠন ।। দৈনিক ক্রাইমসিন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সহ সম্পাদক হলেন শান্ত ।। দৈনিক ক্রাইমসিন বিএনপিকে প্রতিহত করতে হবে প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মাহবুব আলী এমপি।। দৈনিক ক্রাইমসিন মাধবপুরে পঙ্গু রহিমা বেগমের একটি ঘরের জন্য আকুতি।। দৈনিক ক্রাইমসিন মেসির জন্য সিংহের মতো লড়বে আর্জেন্টিনা ।। দৈনিক ক্রাইমসিন শায়েস্তাগঞ্জ থানার নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ।। দৈনিক ক্রাইমসিন মাধবপুরের তেলিয়াপাড়া চা বাগান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসৌধে দুই মন্ত্রীর শ্রদ্ধা ।। দৈনিক ক্রাইমসিন সারাদেশে আগামী ১৫ দিন পুলিশের বিশেষ অভিযান।। দৈনিক ক্রাইমসিন

বাড়ির ছাদে ডেকে নিয়ে গিয়ে যৌন নির্যাতন, ৪ বছরের শিশু হাসপাতালে-দৈনিক ক্রাইমসিন

নিজেস্ব প্রতিনিধি :

সড়ে ৪ বছরের এক শিশুকে যৌননির্যাত চালনোর অভিযোগ উঠেছে বাড়ীওয়ালার ছেলের বিরুদ্ধে। ঘটনটি ঘটেছে পুরান ঢাকার সুত্রাপুর থানাধীন কাঠেরপুল এলকায়। শিশুটি এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপতালের ওয়ন-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি) তে আছে।

জানা গিয়েছে পুরান ঢাকার সূত্রাপুরের কাঠেরপুল ওই শিশুর বাড়ি। রবিবার (২২ মে) দুপুরে খাওয়া দাওয়ার পর ও-ই বাড়ির সিড়িতে একটি বাচ্চার সঙ্গে খেলা করছিল সে। সেই সময় বাড়িওয়ালার (মোঃ আনিস) ছেলে আব্দুর রহিম (মাদ্রাসাছাত্র) বয়স আনুমানিক ১২/১৩ ওই শিশুকে ডেকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ছাদে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে গিয়ে আব্দুর রহিম শিশুটির উপর যৌননির্যাতন চালায় বলে অভিযোগ।

এসময় শিশুটির মা অনেক ডাকাডাকি করে। কিন্তু শিশুটি কোন উত্তর দেয়নি। কিছুক্ষন পর শিশুটি ভেজা শরীর নিয়ে ভয়ে ভয়ে নিচে নেমে আসে। তাকে ভয় দেখনোতে সে তার মাকে কিছু বলে নাই। সন্ধ্যায় তার বাবা কাজ থেকে শিশুটিকে ভয় ভয় দেখাতে ওর সাথে কথা বললে বিষয়টি জানাজানি হয়।

শিশুটির বাবা বাড়ীওয়ালা (মোঃ আনিস) কে অনেক বার ফোন করেও পাওয়া যায়নি। তখন রাত ১১টায় শিশুর বাবা মামলার জন্য থানার দিকে রওনা দিলে বাড়ীওয়ালা খবর পেয়ে তাকে ফোন করে মীমাংসা করার জন্য বাড়িতে ডাকে। এরই মধ্যে শিশুর বাবা বিষয়টি ওয়ার্ড কাউন্সিলর (সংরক্ষিত আসন-১৬, ঢ.দ.দি.ক) নাসিমা আহমেদ কে অবহিত করেন। তিনি বলে আগে শিশুটির চিকিৎসা করানো প্রয়োজন তাই ওকে নিয়ে হাস্পাতালে যেতে।

এদিকে বাড়ীওয়ালা (মোঃ আনিস) মীমাংসার কথা বলে তার ছেলে নাবালক কিছু বোঝেনা শিশুটি মিথ্যা কথা বলে এ ধরনের কথা বলে উল্টো মামলার ভয় দেখিয়ে হুমকি দেন।

শিশুর বাবা-মা কোন দিক না দেখে রাত ২টার সময় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। কর্তব্যরত ডাক্তার দেখে মেডিক্যাল টেস্ট করানোর জন্য শিশুটিকে ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি) তে ভর্তি রাখেন। মেডিক্যাল রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত কোন মামলা হচ্ছে না।

জানা যায় মোঃ আনিস একজন সিএনজি ব্যাবসায়ী। এলাকায় তার অনেক প্রভাব আছে।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে ভাগ করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত